RSS

ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচুন !! (কম্পিউটার ভাইরাস)

20 Sep

সাধারণত অ্যান্টি-ভাইরাস থাকার পরও অনেক সময় কম্পিউটারে ভাইরাস ঢুকে পরে। অসতর্কভাবে পেনড্রাইভ ব্যবহার এবং অ্যান্টি-ভাইরাস হাল নাগাদ না থাকলে অথবা নেট থেকে আপনার কম্পিউটারে ভাইরাস ঢুকে পড়তে পারে। এ ধরনের ঝামেলা থেকে মুক্তি পেতে আপনি ভাইরাস মুছে ফেলতে পারেন। নিজে নিজে ভাইরাস মুছে ফেলা যেমন কার্যকরি, তেমনি মজারও। ভাইরাসের মধ্যে new folder.exe ভাইরাসের সংগে পরিচয় অনেকেরই আছে, যেটা তৈরি হয় মূলত autorun.inf ফাইল থেকে।

এ ভাইরাস মুছতে প্রথমেই-

1. Start মেনু থেকে Search-এ গিয়ে autorun.inf লিখে Search করুন।

2. এখন যে ফাইলগুলো আসবে, তা এক এক করে রাইট ক্লিক করে Properties-এ গিয়ে read only option-টি un-check করুন।

3. এবার ফাইলটি নোটপেড দিয়ে Open করে Ctrl+A চেপে ফাইলে থাকা সব ডেটা ডিলিট করে দিন এবং সেইভ করে বেরিয়ে আসুন।

4. এরপর Start মেনু থেকে Run-এ গিয়ে msconfig লিখে OK করুন।

5. এবার Startup tab-এ যান, regsvr থাকলে un-check করুন এবং Exit without Restart করে বেরিয়ে আসুন।

6. এবার Control panel>Scheduled tasks-এ গিয়ে এখানকার সব task ডিলিট করুন।

7. পুনরায় Start>Run-এ গিয়ে gpedit.msc লিখে OK করুন।

8. এরপর UsersConfiguration>AdministrativeTemplates >System-এ যান এবং Prevent access to registry editing tools-এ গিয়ে disable করে দিন।

9. আবার Start>Run-এ গিয়ে regedit লিখে OK করুন। এবার to edit>find-এ গিয়ে regsvr.exe লিখে Search করুন এবং regsvr.exe-এর সব ধরনের occurrence ডিলিট করুন। এ ক্ষেত্রে সাবধান? যেন কোনো system file ডিলিট না হয়ে যায়। যেমন- regsvr32.exe ডিলিট করা যাবে না। শুধু regsvr.exe থাকলে তা ডিলিট করে দিবেন।

10. আবার Start>Search>all files and folders-এ যান এবং *.exe লিখুন এবং এরপর when was it modified-এ ক্লিক করে specify date সিলেক্ট করুন। যে তারিখের মধ্যে ভাইরাস আসছে বলে মনে হয়, ঐ তারিখ লিখে Search করুন। তারিখ এমনভাবে লিখুন, যে তারিখের মধ্যে শুধু ভাইরাস এসেছে কিন্তু অন্য কোনো Software install করেন নাই বলে মনে হয়।

11. এবার Search শেষ হলে সব .exe ফাইল সিলেক্ট করে Shift+ Delete দিয়ে ডিলিট করুন।

12. একইভাবে regsvr.exe, svchost.exe লিখে search করুন এবং ডিলিট করুন।

13. সব শেষে কম্পিউটার পুনরায় রিস্টার্ট করুন এবং উপভোগ করুন ভাইরাসমুক্ত পিসি। এভাবে অন্যান্য ভাইরাস ডিলিট করা যায়।

কম্পিউটারকে রাখুন ভাইরাসমুক্ত

ভাইরাসের কারণে সাধরণ ব্যবহারকারীরা অতিষ্ঠ প্রায়। এমন কিছু ভাইরাস আছে, যা অনেক সময় অ্যান্টিভাইরাস দিয়েও সরানো যায় না। ইচ্ছে করলে আপনি আপনার পিসিকে এসব ভাইরাসের কবল থেকে মোটামুটি মুক্ত রাখতে পারেন। বেশির ভাগ ভাইরাসই চালু করার জন্য autorun.inf নামে ফাইল লুকানো (হিডেন) অবস্থায় থাকে। কোনোভাবে যদি ঐ ফাইলটি Delete করা যায়, তাহলেই সমস্যা সমাধান সম্ভব। এ ছাড়া পেনড্রাইভে বা কোন ড্রাইভে যদি কোন ভাইরাস থেকে থাকে আর সেই ড্রাইভটি যদি ডাবল ক্লিক করে খোলার চেষ্টা করা হয়, তবে ভাইরাসটি অ্যাকটিভেটেড হয়ে যায। তাই মনে রাখবেন, যে কোনো ড্রাইভ রাইট ক্লিক করে Open দিয়ে খুলবেন। আপনার পেনড্রাইভটিতে যে ভাইরাস আছে, সেগুলো থেকে মুক্তি পেতে আপনার পিসিতে পেনড্রাইভ Open করার আগে কিছু কাজ করে নিন।

1. ডেস্কটপে MyAntivirus নামে একটি ফাইল তৈরি করুন, যার এক্সটেনশন থাকবে .bat অর্থাৎ আপনার পুরো ফাইলটির নাম হবে MyAntivirus.bat.

2. এবার ফাইলে রাইট ক্লিক করে edit option সিলেক্ট করুন।
এবার লিখুন:
cd X:
cd\
del *.exe/ah/s/q/f
del *.inf/ah/s/q/f
del ‘‘New Folder.exe’’/s/q/f
del *.bat/ah/s/f/q
del *.cmd/ah/s/q/f
explorer X:

বি: দ্র: এখানে X হলো আপনার পিসিতে পেনড্রাইভ প্রবেশ করালে যে ডিরেক্টরিতে পাওয়া যায় সেটি যেমন- I কিংবা J।

3. এবার ফাইলটি Save করে রাখুন।

4. আপনি যখনই আপনার পিসিতে পেনড্রাইভ প্রবেশ করবেন, তখনই পেনড্রাইভ ক্লিক করে Open না করে বরং এ File ডাবল ক্লক করম্নন। দেখবেন পেনড্রাইভ Open হয়েছে কিন্তু কোন ভাইরাস নেই। মনে রাখবেন পেনড্রাইভে যাতে কোনো হিডেন *.exe ফাইল না থাকে।

পেন ড্রাইভ রাখুন ভাইরাসমুক্ত

পেনড্রাইভ খুব দরকারি হলেও এটি ভাইরাস ছড়ানোর একটি বড় মাধ্যম। এটি ভাইরাসে আক্রামত্ম হলে যন্ত্রণা ও ঝামেলার শেষ নেই। তবে একটু সচেতন হলে পেনড্রাইভ ভাইরাসমুক্ত রাখা যায়।

· পেনড্রাইভ কখনো দুই ক্লিক করে খুলবেন না।

· পেনড্রাইভ সব সময় My Computer-এ গিয়ে অ্যাড্রেস বার (Address Bar) থেকে খুলবেন বা ফোল্ডার ভিউ (ÿ+E) থেকে খুলবেন।

· পেনড্রাইভ কখনো ডান ক্লিক করে ওপেন অপশন কিংবা এক্সপে­ারার অপশনে ক্লিক করে ওপেন করবেন না।

· পেনড্রাইভ কম্পিউটারে ঢোকানোর সংগে সংগে কিবোর্ডের শিফট কি কিছুক্ষণ চেপে রাখুন। এতে পেনড্রাইভটি নিজে নিজে খুলবে ( অটো-রান ) না। আর চালক ফাইলগুলোও (*.exe ) খুলবে না। ফলে ভাইরাস থাকলেও সেসব কম্পিউটারে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা কম খাকে।

· পেনড্রাইভে একামত্ম প্রয়োজনীয় ফাইলগুলো রাখার চেষ্টা করম্নন।

· ফোল্ডারের বৈশিষ্ট্য নির্ধারণ করার ( সেটিংস ) সময় ‘শো হিডেন ফাইলস অ্যান্ড ফোল্ডারস‘ অবস্থায় রাখুন। এতে কিছু ভাইরাস পেনড্রাইভে হিডেন অবস্থায় দেখতে পাবেন এবং এগুলো মুছে ফেলুন।

· প্রয়োজনীয় ফাইল হার্ডডিস্ক ড্রাইভে সরিয়ে রেখে পেনড্রাইভ মাঝেমধ্যে ফরম্যাট করে নিতে পারেন।

· পেনড্রাইভে Autorun.inf থাকলে মুছে ফেলুন। এজন্য স্টার্ট থেকে সার্চ অপশনে গিয়ে Autorun.inf লিখে ফাইলটি খুঁজে বের করম্নন।

· পেনড্রাইভে যাতে নতুন কোনো কাজ করা না যায় সে ব্যবস্থা ( রাইট প্রোটেক্ট ) করে রাখতে পারেন। এ জন্য আপনি ‘USB Write Protector‘ সফটওয়্যারটি ওয়েব সাইটের http://www.gaijin.at/
getit-php?id=usbwp ঠিকানা থেকে বিনা মূল্যে সংগ্রহ করে নিতে
পারেন।

· অ্যান্টি-ভাইরাস সফটওয়্যার থাকলে সেটি দিয়ে পেনড্রাইভ স্ক্যান করে ব্যবহার করুন।

ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচুন

পেনড্রাইভের মাধ্যমে অযাচিত কিছু চালক ফাইল (*.exe) কম্পিউটারে ঢুকে পড়ে। এসবের মধ্যে 2u.exe-সহ আরও বেশ কিছু ফাইল ভাইরাস বহন করে। কিছু আছে, যা কিবোর্ড ও মাউসকে অকার্যকর করে দেয়। এই ফাইলগুলো অটোরানের মাধ্যমে কম্পিউটারে প্রবেশ করে। এসব ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকতে হলে-

1. Start মেনু থেকে Run-এ গিয়ে gpedit.msc লিখে এন্টার করুন। এবার Group Policy উইন্ডো আসবে, ওখান থেকে ইউজার কনফিগারেশনে (User Configuration) + চাপুন।

2. এবার Administrative Templates এবং System-এ ক্লিক করুন।

3. এরপর ডান পাশে Turn off Autoplay-তে দুই ক্লিক করুন এবং এটা সব ড্রাইভের জন্য Enabled করে Apply এবং OK করুন।

এর পাশাপাশি ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকতে চাইলে কিছু সতর্কতা অবলম্বন করুন।

5. যেকোনো পেনড্রাইভ খোলার আগে উইনবার সফটওয়্যারের মাধ্যমে পেনড্রাইভটি পরীক্ষা করে দেখুন, ড্রাইভটিতে কোনো autorun.inf ফাইল আছে কি না বা কোনো অযাচিত *.exe ফাইল আছে কি না। থাকলে ওগুলো মুছে ফেলুন এবং অবশ্যই পেনড্রাইভ সরাসরি না খুলে এক্সপেস্নারার ব্যবহার করে খুলুন। তাহলে এসব ভাইরাস থেকে সহজেই মুক্ত থাকা সম্ভব।

ফ্ল্যাশ ড্রাইভের অটোরান ভাইরাস থেকে মুক্তির উপায়

অটোরান (autorun.inf) আসলে কোন প্রকার ভাইরাস নয়। এটি ফ্ল্যাশড্রাইভের যে কোন ধরনের ফাইল বা ভাইরাসকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালু করে থাকে। কিছু কিছু ভাইরাস নিজেরাই autrun.inf তৈরি করে থাকে। ফলে ফ্ল্যাশ ড্রাইভের আইকনে ডাবল ক্লিক করলেই নির্দিষ্ট ফাইল বা ভাইরাস স্বয়ংক্রিয় ভাবে কম্পিউটারে চালু হবে। তবে কম্পিউটাররের অটোরান সিস্টেম ডিজ্যাবল করা থাকলে ফ্ল্যাশড্রাইভের ভাইরাস কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালু হতে পারবে না। পেনড্রাইভের মাধ্যমে ভাইরাস ছড়ানোর হার বেশি থাকে। তাই ফ্ল্যাশড্রাইভ বা পেনড্রাউভের ভাইরাস থেকে বাঁচতে চাইলে কম্পিউটারে অটোরান সিস্টেম বন্ধ করতে হবে। এজন্য-

1. প্রথমে Start>Settings/Control Panel>Administrative Tools-এ ডাবল ক্লিক করম্নন। পর্দায় একটি উইন্ডো আসবে।

2. উক্ত উইন্ডোর Service-এ ডাবল ক্লিক করে ওপেন করম্নন। পর্দায় Service উইন্ডো আসবে।

3. এবার Service উইন্ডোর ডান পাশ থেকে Shell Hardware Detection-এ ডাবল ক্লিক করম্নন। পর্দায় Shell Hardware Detection Properties ডায়ালগ বক্স আসবে।

4. উক্ত ডায়ালগ বক্সের General ট্যাবে ক্লিক করে Startup types: অপশন ঘরে Disabled সিলেক্ট করে Apply এবং OK করম্নন।

বি:দ্র: Shell Hardware Detection Service টি বন্ধ করে রাখতে পারেন। এর ফলে CD-ROMS/DVD ROMS বা ফ্ল্যাশড্রাইভ বা পেনড্রাইভের কোন AutoPlay Option কাজ করবে না এবং পিসিতে ভাইরাস আক্রমণ করার সুযোগও থাকবে না।

5. এরপর কম্পিউটার একবার রিস্টার্ট করম্নন। এখন থেকে কম্পিউটারে কোন ফ্ল্যাশড্রাউ বা পেনড্রাইভ অটোরান করতে পারবে না।

নোট: একটি বিষয় লক্ষ রাখা উচিত, কোন External Drive কম্পিউটারে ঢুকানোর পর সেটা ওপেন করতে মাউসের ডাবল ক্লিক না করে ডান বাটন ক্লিক করে Open করা উচিত। এতে ঐ ফোল্ডারে কোনো ভাইরাস থাকলে তা আর ইনস্টল হবে না।

Advertisements
 
Leave a comment

Posted by on September 20, 2011 in Daily life tips

 

Tags:

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

 
%d bloggers like this: